নারীদের পর্দার ভিতরে যাওয়ার নির্দেশ তালেবান সরকারের

অনলাইন নিউজঃ কাবুল ও সরকার ঘোষণার আগে থেকেই নারী শিক্ষক, গায়ক, শিল্পী, খেলোয়াড়সহ প্রায় সব বিখ্যাত নারীরা আফগান ছেড়েছিল। শুধু তাই নয়, দেশের নারীরা বোরখা কেনায় ব্যস্ত ছিল, আর তাতে বোরখার দাম ৩ থেকে ৬গুণ বৃদ্ধির খবরও ছড়িয়ে পড়েছিল।

গতকাল আফগানিস্তানে তালেবানেরা তাদের সরকার ঘোষণার পরপরই সাধারন শিক্ষাকে মূল্যহীন আখ্যা দিয়ে বন্ধ করার প্রস্তাব রাখে তালেবান শিক্ষা মন্ত্রী আজ নারীরা ক্রিকেটসহ কোনো ধরনের খেলাধুলায় অংশ নিতে পারবেন না বলে ঘোষণা করছে দেশটিতে সদ্য দায়িত্ব নেওয়া তালেবানের সাংস্কৃতিক কমিশন।

আজ বুধবার একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে এ খবর জানা গেছে। খবর দ্য গার্ডিয়ান

অস্ট্রেলিয়ার একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তালেবানের সাংস্কৃতিক কমিশনের উপ-প্রধান, আহমদুল্লাহ ওয়াসিক জানান, নারীদের জন্য খেলাধুলা করাটা গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয়। আমি মনে করি না নারীদের ক্রিকেট খেলতে দেওয়া উচিত। কারণ নারীদের জন্য ক্রিকেট খেলা গুরুত্বপূর্ণ নয়। ক্রিকেট খেলায় নারীদের মুখ আর শরীর ঢাকা থাকে না। ইসলাম নারীদের এভাবে চলাফেরার অনুমোদন দেয় না।

তিনি বলেন, গণমাধ্যমের এই যুগে সহজেই ছবি আর ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। আর সেসব পুরুষরাও দেখেন। ক্রিকেট আর অন্য যেসব খেলায় নারীদের বেপর্দা হওয়ার সুযোগ থাকে সেসব খেলা ইসলাম ও ইসলামী আমিরাত অনুমোদন করে না।

আইসিসির অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট ম্যাচ বাতিল করার সম্ভাবনার বিষয়ে জানতে চাইলে ওয়াসিক বলেন, এ ব্যাপারে তালেবান আপোষ করবে না।

অবশ্য আফগান পুরুষরা খেলাধুলায় অংশ নিতে পারবে বলে গত মাসে এক গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন ওয়াসিক। চলতি বছরের শেষের দিকে পুরুষদের জাতীয় ক্রিকেট দলের অস্ট্রেলিয়া সফরের কথা রয়েছে। ওই সফরে পুরুষ ক্রিকেট দল যেতে পারবেন বলে জানিয়েছিলেন ওয়াসিক।

শেয়ার করুন