জাতিসংঘের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসীদের নিয়ে তালেবানি সরকারঃ জাতিসংঘের উদ্বেগ

এতে তালেবান সরকারের প্রধান করা হয়েছে মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে। সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালানোর অভিযোগে তাঁর ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হাক্কানি নেটওয়ার্কের নেতা সিরাজউদ্দিন হাক্কানি। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ সন্ত্রাসীর তালিকায় আছেন। তাঁর মাথার জন্য এক কোটি মার্কিন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। এমন আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, তারা আগামী দিনগুলোয় তালেবান সরকারের কর্মকাণ্ড দেখবে। মুখের কথা নয়, তাদের কাজের ওপর ভিত্তি করে তালেবান সরকারকে মূল্যায়ন করা হবে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র তালেবানের নতুন সরকার নিয়ে বলেন, তাঁরা আফগানিস্তানের নতুন সরকারে থাকা ব্যক্তিদের সম্পর্কে অবগত, তারা সবাই সন্ত্রাসী তালিকায় রয়েছে। নতুন সরকারে তালেবান ও তাদের ঘনিষ্ঠ সহযোগীরা থাকলেও কোনো নারী নেই। তালেবান সরকারের কয়েক সদস্যের নানা সংশ্লিষ্টতা ও অতীত কর্মকাণ্ড নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ আমাদের মিত্ররা উদ্বিগ্ন।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ওই মুখপাত্র আরও বলেন, নতুন সরকারকে তালেবান তত্ত্বাবধায়ক সরকার বলছে। বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্রের মাথায় আছে। তারপরও তারা তালেবানকে তাদের কাজের মাধ্যমে মূল্যায়ন করবে, তাদের কথায় নয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা আমাদের প্রত্যাশা স্পষ্ট করেছি। আফগানিস্তানের জনগণের একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার পাওয়া উচিত।’

আফগান পরিস্থিতি নিয়ে কাতারে বৈঠক করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। গতকাল তিনি বলেন, আফগানিস্তান থেকে লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার কাজে তালেবান সহায়তা করেছে। এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধী দল রিপাবলিকান পার্টিসহ অন্যদের অভিযোগ নাকচ করেন তিনি।

শেয়ার করুন