জনপ্রিয় শিল্পী এন্ড্রো কিশোরের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশের সবচেয়ে নামীদামী কন্ঠ শিল্পী যাকে বলা হয় সুরের যাদুকর, যার কন্ঠে গাওয়া হয় হাজারো জনপ্রিয় গান; গণ মানুষের প্রিয় শিল্পী এন্ড্রো কিশোর ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন হাসপাতালের বেডে শয্যাশায়ী। প্রখ্যাত এই সংগীত শিল্পী এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসায় এরই মধ্যে খরচ হয়েছে প্রায় কোটি টাকা। দীর্ঘদিন তার চিকিৎসার জন্য প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছিল তাঁর সহকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা। বেবি নাজনীন সহ অনেক শিল্পীদের উদ্যোগে যুক্তরাস্ট্রেও কনসার্টের মাধ্যমে ফান্ড সংগ্রহ করা হয়েছিল তাঁর চিকিৎসা ব্যয় করার জন্য। তবে তাঁর মূল চিকিৎসার জন্য বড় এমাউন্ডের টাকার প্রয়োজন।
তাঁর চিকিৎসার পূর্ণ সহায়তা দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শিল্পীর চিকিৎসার পুরো বিষয়টি তদারকি করার জন্য আজ দুপুরে সিঙ্গাপুর দূতাবাসকে এই সংক্রান্ত নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।
চিকিৎসার মাঝখানে প্রায় এক মাস শারীরিক কিছু জটিলতার কারণে এন্ড্রু কিশোরকে কেমোথেরাপি দেওয়া বন্ধ রেখেছিলেন চিকিৎসক। জরুরি ভিত্তিকে কয়েক ব্যাগ রক্তও দিতে হয়েছে তাকে। সর্বশেষ খবর জানা গেল শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে প্লেব্যাক সম্রাটের। গতকাল শনিবার থেকে তাকে আবারও কেমোথেরাপি দেওয়া শুরু করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এন্ড্রু কিশোরের স্নেহভাজন কণ্ঠশিল্পী মোমিন বিশ্বাস।
তিনি বলেন, চিকিৎসার শুরুতে জানানো হয়েছিল, এন্ড্রু কিশোরকে ৬টি সাইকেলে ২৪টি কেমোথেরাপি দিতে হবে। ইতোমধ্যে তার ১৭টি কেমো সম্পন্ন হয়েছে। এবার শুরু হলো ১৮তম কেমোথেরাপিটি। এটা শেষ হলে আর এখনো ৬টি কেমো দেওয়া বাকি। আশা করা হচ্ছে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে সবার মাঝে ফিরে আসবেন তিনি। তার পরিবার দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

শেয়ার করুন